Shital Pati শীতল পাটি
Traditional Art of Embroidery Quilt(NAKSHI KANTHA) ঐতিহ্যবাহী নকশী কাঁথা শিল্প
Traditional Wooden Mummy Dolls in Sonargoan সোনারগাঁয়ের ঐতিহ্যবাহী কাঠের মমি পুতুল
Traditional Art of Jamdani Weaving ঐতিহ্যবাহী জামদানি বয়ন শিল্প
Traditional Pottery of SHOKHER HARI in Rajshahi division রাজশাহী বিভাগের ঐতিহ্যবাহী মৃৎশিল্প শখের হাঁড়ি
Traditional Hand Fan in Sonargoan সোনারগাঁওয়ের ঐতিহ্যবাহী হাত পাখা
Traditional Pottery making process with using wheel চাকা ব্যবহার করে ঐতিহ্যবাহী মৃৎপাত্র তৈরির প্রক্রিয়া
Traditional Art of Shatronji making in Rangpur division রংপুর বিভাগের ঐতিহ্যবাহী শতরঞ্জি তৈরির শিল্প
Traditional Art of Shola Crafts ঐতিহ্যবাহী শোলা কারুশিল্প
Traditional Wood Carving work of Bangladesh বাংলাদেশের ঐতিহ্যবাহী কাঠ খোদাই কাজ
Traditional Arts of Bamboo & Canes বাঁশ ও বেতের ঐতিহ্যবাহী শিল্প
Traditional Pottery making ঐতিহ্যবাহী মৃৎশিল্প তৈরি
Traditional Tepa Putul or Handmade Doll crafts ঐতিহ্যবাহী টেপা পুতুল বা হাতে তৈরি পুতুলের কারুকাজ

ICH Inventory সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য ইনভেন্টরি


Bangladesh National Museum is an institution dedicated to collecting, preserving, researching, and displaying historical documents, archaeological artifacts, decorative arts, ethnological materials, and specimens of the natural heritage of Bangladesh. Bangladesh is a country that boasts a rich history and tradition, which has been cherished for over 5000 years. The cultural heritage of the region shines with pride. It is not limited to archaeological monuments and tangible objects. Bangladesh is one of the most culturally diverse countries in the world, with a diverse group of people. The diverse Intangible Cultural Heritage (ICH) of Bangladesh has enriched its culture. The sub-genre of this country's culture is vast, and many traditions are already lost. It is our responsibility to protect the existing traditions, including oral traditions and expressions, intangible cultural traditions, performing arts, social practices, rituals, and festive events, knowledge and practices concerning nature and the universe, and traditional crafts. All of these are usually inherited from our ancestors. Bangladesh has thousands of these intangible cultural elements.

The term ‘cultural heritage’ has changed considerably in recent decades, partially owing to the instruments developed by UNESCO. Previously, collections of monuments and objects were mainly called cultural heritage. But now, cultural heritage includes traditions or living expressions inherited from our ancestors and passed on to our descendants. These include oral traditions, performing arts, social practices, rituals, festive events, knowledge and practices concerning nature and the universe, or the knowledge and skills to produce traditional crafts. Intangible cultural heritage is an important factor in maintaining cultural diversity in the face of growing globalization. An understanding of the intangible cultural heritage of different communities helps with intercultural dialogue and encourages mutual respect for other ways of life.

Bangladesh has signed the 2003 UNESCO Convention for the Safeguarding of the Intangible Cultural Heritage (ICH) to protect the intangible cultural heritage spread across the country. Ministry of Cultural Affairs has signed a MoU with UNESCO-accredited NGO 'SADHONA'” here the Bangladesh National Museum is the leading agency to create the National Inventory of ICH on behalf of the Ministry of Cultural Affairs. Bangladesh National Museum has officially launched Intangible Cultural Heritage (ICH) national inventory on 30th Sep 2023 with 109 elements. The elements of ICH are scattered all over Bangladesh. However, efforts are being made to include these elements in the ICH national inventory. This inventory will create a complete list of components to help safeguard valuable elements. The Bangladesh National Museum and private institutions working on cultural issues can take various measures to protect and preserve these elements.
বাংলাদেশ জাতীয় জাদুঘর হল ঐতিহাসিক নথি, প্রত্নতাত্ত্বিক নিদর্শন, আলংকারিক শিল্প, নৃতাত্ত্বিক উপকরণ এবং বাংলাদেশের প্রাকৃতিক ঐতিহ্যের নমুনা সংগ্রহ, সংরক্ষণ, গবেষণা এবং প্রদর্শনের জন্য নিবেদিত একটি প্রতিষ্ঠান। বাংলাদেশ এমন একটি দেশ যেটি একটি সমৃদ্ধ ইতিহাস এবং ঐতিহ্য নিয়ে গর্বিত, যা ৫০০০ বছরেরও বেশি সময় ধরে লালিত হয়ে আসছে। এই অঞ্চলের সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য গর্বের সাথে জ্বলজ্বল করে। এটি প্রত্নতাত্ত্বিক স্মৃতিস্তম্ভ এবং বাস্তব বস্তুর মধ্যে সীমাবদ্ধ নয়। বাংলাদেশ বিশ্বের সবচেয়ে সাংস্কৃতিকভাবে বৈচিত্র্যময় দেশগুলির মধ্যে একটি, যেখানে বিভিন্ন জনগোষ্ঠী রয়েছে। বাংলাদেশের বৈচিত্র্যময় ইনটেনজিবল কালচারাল হেরিটেজ (আইসিএইচ) এর সংস্কৃতিকে সমৃদ্ধ করেছে। এই দেশের সংস্কৃতির উপ-ধারা বিশাল, এবং অনেক ঐতিহ্য ইতিমধ্যে হারিয়ে গেছে। মৌখিক ঐতিহ্য এবং অভিব্যক্তি, অস্পষ্ট সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য, পারফর্মিং আর্টস, সামাজিক অনুশীলন, আচার-অনুষ্ঠান এবং উত্সব অনুষ্ঠান, প্রকৃতি এবং মহাবিশ্ব সম্পর্কিত জ্ঞান এবং অনুশীলন এবং ঐতিহ্যবাহী কারুশিল্প সহ বিদ্যমান ঐতিহ্যগুলিকে রক্ষা করা আমাদের দায়িত্ব। এই সব সাধারণত আমাদের পূর্বপুরুষদের কাছ থেকে উত্তরাধিকারসূত্রে পাওয়া যায়। বাংলাদেশে হাজার হাজার এই অধরা সাংস্কৃতিক উপাদান রয়েছে।

'সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য' শব্দটি সাম্প্রতিক দশকগুলিতে উল্লেখযোগ্যভাবে পরিবর্তিত হয়েছে, আংশিকভাবে ইউনেস্কোর দ্বারা তৈরি যন্ত্রগুলির কারণে। পূর্বে, স্মৃতিস্তম্ভ এবং বস্তুর সংগ্রহকে প্রধানত সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য বলা হত। কিন্তু এখন, সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য আমাদের পূর্বপুরুষদের কাছ থেকে উত্তরাধিকারসূত্রে প্রাপ্ত ঐতিহ্য বা জীবন্ত অভিব্যক্তিকে অন্তর্ভুক্ত করে এবং আমাদের বংশধরদের কাছে চলে যায়। এর মধ্যে রয়েছে মৌখিক ঐতিহ্য, পারফরমিং আর্ট, সামাজিক অনুশীলন, আচার-অনুষ্ঠান, উত্সব অনুষ্ঠান, প্রকৃতি এবং মহাবিশ্ব সম্পর্কিত জ্ঞান এবং অনুশীলন, বা ঐতিহ্যগত কারুশিল্প তৈরির জ্ঞান এবং দক্ষতা। ক্রমবর্ধমান বিশ্বায়নের মুখে সাংস্কৃতিক বৈচিত্র্য বজায় রাখার জন্য অস্পষ্ট সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। বিভিন্ন সম্প্রদায়ের অস্পষ্ট সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের উপলব্ধি আন্তঃসাংস্কৃতিক কথোপকথনে সহায়তা করে এবং জীবনের অন্যান্য উপায়ের জন্য পারস্পরিক শ্রদ্ধাকে উত্সাহিত করে।

বাংলাদেশ ২০০৩ সালের ইউনেস্কো কনভেনশন ফর দ্য সেফগার্ডিং অফ দ্য ইনট্যাঞ্জিবল কালচারাল হেরিটেজ (আইসিএইচ) সারা দেশে ছড়িয়ে থাকা অস্পষ্ট সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য রক্ষার জন্য স্বাক্ষর করেছে। সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয় ইউনেস্কো-স্বীকৃত এনজিও 'সাধোনা'-এর সাথে একটি সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর করেছে। বাংলাদেশ জাতীয় জাদুঘর আনুষ্ঠানিকভাবে ১০৯টি উপাদান সহ ৩০শে সেপ্টেম্বর ২০২৩ তারিখে অধরা সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের একটি জাতীয় তালিকা চালু করেছে। অধরা সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের উপাদানগুলো সারা বাংলাদেশে ছড়িয়ে ছিটিয়ে আছে। তবে, আইসিএইচ জাতীয় তালিকায় এই উপাদানগুলি অন্তর্ভুক্ত করার চেষ্টা করা হচ্ছে। এই ইনভেন্টরিটি মূল্যবান উপাদানগুলিকে রক্ষা করতে সাহায্য করার জন্য উপাদানগুলির একটি সম্পূর্ণ তালিকা তৈরি করবে। বাংলাদেশ জাতীয় জাদুঘর এবং সাংস্কৃতিক বিষয়ে কাজ করা বেসরকারি প্রতিষ্ঠানগুলো এসব উপাদান রক্ষা ও সংরক্ষণের জন্য বিভিন্ন ব্যবস্থা নিতে পারে।

❏ Division wise Information ❏ বিভাগ ভিত্তিক তথ্য


# Division বিভাগ Element উপাদান
Intangible বিমূর্ত Tangible মূর্ত Natural প্রাকৃতিক Total মোট
1 2 3 4 5 6 7
1. Dhaka ঢাকা 31 ৩১ 0 0 31 ৩১
2. Rajshahi রাজশাহী 10 ১০ 0 0 10 ১০
3. Chattogram চট্টগ্রাম 8 0 0 8
4. Khulna খুলনা 14 ১৪ 0 0 14 ১৪
5. Barishal বরিশাল 11 ১১ 0 0 11 ১১
6. Sylhet সিলেট 21 ২১ 0 0 21 ২১
7. Rangpur রংপুর 10 ১০ 0 0 10 ১০
8. Mymensingh ময়মনসিংহ 14 ১৪ 0 0 14 ১৪
Total: মোট: 119 ১১৯ 0 0 119 ১১৯

National Map জাতীয় মানচিত্র


Quotes for Cultural Heritage Inventory সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য ইনভেন্টরি জন্য উদ্ধৃতি


Md. Kamruzzaman

Director General

Bangladesh National Museum, Shahbag, Dhaka-1000, Bangladesh


Knowing the past helps us to understand the present and build a better future. The National ICH Inventory, built with the support of the people of the country, is therefore a powerful tool for initiating new horizons of a progressive and sustainable Bangladesh.

মোঃ কামরুজ্জামান

মহাপরিচালক

বাংলাদেশ জাতীয় জাদুঘর, শাহবাগ, ঢাকা-১০০০, বাংলাদেশ


অতীতকে জানা আমাদের বর্তমানকে বুঝতে এবং একটি উন্নত ভবিষ্যত গড়তে সাহায্য করে। দেশের জনগণের সমর্থনে নির্মিত জাতীয় আইসিএইচ ইনভেন্টরি তাই একটি প্রগতিশীল ও টেকসই বাংলাদেশের নতুন দিগন্তের সূচনা করার জন্য একটি শক্তিশালী হাতিয়ার।